শিরোনাম
চন্দ্রগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ পরিদর্শক ওসি’র উদ্যোগে যানজট মুক্ত চৌমুহনী চৌরাস্তা পিকেএসএফ-এর সহকারী মহাব্যবস্থাপক কর্তৃক দাবী মৌলিক উন্নয়ন সংস্থায় আরএমটিপি’র উপ-প্রকল্প কার্যক্রম পরিদর্শন। আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা অভয়নগরে মা’র লাশ বাসায় রেখে এসএসসি পরীক্ষা দিল ছেলে বগুড়ার কৃতি সন্তান রামপুরা থানার সাব ইন্সপেক্টর মুমিনুর রহমানকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান। বগুড়া গরিব দুঃখীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ। দাবী’ নওগাঁয় পিকেএসএফ প্রতিনিধির উপস্থিতিতে তরুণ উদ্যোক্তাদের অর্থায়ন ও প্রশিক্ষণ বিষয়ক অগ্রগতি আলোচনা সভা।  পিকেএসএফ ও বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধি দলের দাবী মৌলিক উন্নয়ন সংস্থায় রেইজ প্রকল্প পরিদর্শন রাজশাহী বাঘার গৌরাঙ্গপুর নতুন বছরের প্রথম দিনে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা পেল নতুন বই!  যারা শেখ হাসিনার দেয়া নৌকাকে অস্বীকার করছে, তারা বিশ্বাসঘাতক-মীরজাফর- বাদশা জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নতুন বছরে নতুন বই বিতরণ উৎসব অনুষ্ঠিত। 
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৫৮ অপরাহ্ন

একক চিত্র প্রদর্শনী শুরু হচ্ছে।

 মোঃরিয়াজ উদ্দিনচট্টগ্রাম। / ১৭৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২৩

 মোঃরিয়াজ উদ্দিনচট্টগ্রাম।

২৮ এপ্রিল থেকে ঢাকার আর্ট গ্যালারি কলাকেন্দ্রে।নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের পাঁচালিজাত নাটক ‘প্রাচ্য’ দুইযুগ আগে ঢাকার মঞ্চে প্রদর্শিত হয়েছিল ঢাকা থিয়েটারের প্রযোজনায়। তারও বেশ ক’বছর পর চট্টগ্রামের প্যান্টোমাইম মুভমেন্ট মূকাভিনয়ে মঞ্চস্থ করেছিল নাটকটি। একই নাটক এবার শিল্পী তামিমা সুলতানা চিত্রভাষায় “প্রাচ্য ও দ্বৈতাদ্বৈতবাদ ” শিরোনামে প্রদর্শনী করতে যাচ্ছে ঢাকার আর্ট গ্যালারি কলাকেন্দ্রে। ঢাকা থিয়েটারের আয়োজনে আগামী ২৮ এপ্রিল থেকে ৩ মে পর্যন্ত প্রতিদিন বিকাল ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এই প্রদর্শনী চিত্ররসিক সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। ২৮ এপ্রিল বিকাল ৫টায় এই প্রদর্শনীর উদ্বোধনী দিনে অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন শিল্পী আবুল বারক আলভি এবং শিল্পী নিসার হোসেন। “প্রাচ্য ও দ্বৈতাদ্বৈতবাদ ” প্রদর্শনীর কিউরেটর হিসাবে দায়িত্ব পালন করবেন যথাক্রমে নাট্যাচার্যের শিল্পবন্ধু নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু এবং তাঁর অনুজপ্রতীম শিল্পযোদ্ধা ও চিত্রশিল্পী আফজাল হোসেন। শিল্পী তামিমা সুলতানা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করে মাস্টারডিগ্রী সম্পন্ন করেন ২০১২ সালে। ২০১১ বছর তিনি তার ইনস্টিটিউটের শ্রেষ্ঠ চিত্রশিল্পী হিসাবেও পুরষ্কার প্রাপ্ত হন। তামিমা ২০০০ সালে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে স্বর্ণপদক অর্জন করেছিলেন। বর্তমান প্রদর্শনী সম্পর্কে শিল্পী তামিমা বলেন দ্বৈতাদ্বৈতবাদী ধারণায় আকৃষ্ট হয়ে তিনি শিল্পের নব রস আস্বাদনে ক্যানভাস থেকে ক্যানভাসে ঘুরে বেড়িয়েছেন। শিল্পী জানান করোনাকালীন সময়ে ছবি আঁকার বিষয়ে তিনি মনোযোগী হন এবং পরবর্তী দুবছরের নিরবচ্ছিন্ন সাধনায় কাজটি সম্পন্ন করেন। তামিমা আশা প্রকাশ করেন চিত্রকলায় এ ধরণের কাজে নতুন প্রজন্মের শিল্পীরা যুক্ত হয়ে শিল্পের আরো আরো নব দিগন্ত উন্মোচন করবে। এই আয়োজনে সার্বিক সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার।


এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ