শিরোনাম
চন্দ্রগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ পরিদর্শক ওসি’র উদ্যোগে যানজট মুক্ত চৌমুহনী চৌরাস্তা পিকেএসএফ-এর সহকারী মহাব্যবস্থাপক কর্তৃক দাবী মৌলিক উন্নয়ন সংস্থায় আরএমটিপি’র উপ-প্রকল্প কার্যক্রম পরিদর্শন। আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা অভয়নগরে মা’র লাশ বাসায় রেখে এসএসসি পরীক্ষা দিল ছেলে বগুড়ার কৃতি সন্তান রামপুরা থানার সাব ইন্সপেক্টর মুমিনুর রহমানকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান। বগুড়া গরিব দুঃখীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ। দাবী’ নওগাঁয় পিকেএসএফ প্রতিনিধির উপস্থিতিতে তরুণ উদ্যোক্তাদের অর্থায়ন ও প্রশিক্ষণ বিষয়ক অগ্রগতি আলোচনা সভা।  পিকেএসএফ ও বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধি দলের দাবী মৌলিক উন্নয়ন সংস্থায় রেইজ প্রকল্প পরিদর্শন রাজশাহী বাঘার গৌরাঙ্গপুর নতুন বছরের প্রথম দিনে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা পেল নতুন বই!  যারা শেখ হাসিনার দেয়া নৌকাকে অস্বীকার করছে, তারা বিশ্বাসঘাতক-মীরজাফর- বাদশা জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নতুন বছরে নতুন বই বিতরণ উৎসব অনুষ্ঠিত। 
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:২০ অপরাহ্ন

সহজ-সরল জীবন যাপনের প্রয়োজনীয়তা

আতাউর রহমান / ১৪৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৯ মার্চ, ২০২৩

আতাউর রহমান

বর্তমানে অনেক মানুষের কাছে জীবনের মানে হইয়া দাঁড়াইয়াছে অধিকার করা, অনেক জিনিস নিজের কাছে রাখিয়া দেওয়া। অথচ অনেক মানুষ বাঁচিয়া থাকিবার ন্যূনতম খাবারটুকুও পাইতেছে না। মূলত বস্তুবাদের আধিক্যের কারণে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হইয়াছে। অথচ বিভিন্ন ধর্ম ও তাহার প্রবর্তকগণ এবং জ্ঞানী-গুণী-মনীষীগণ নির্লোভ ও সহজ-সরল জীবন যাপনের প্রতি গুরুত্ব দিয়াছেন। যেমন-আলেকজান্ডার দ্য গ্রেট বলিয়াছেন, ‘যে সহজ-সরল জীবন যাপন করে সুখ তাহার জন্য অত্যন্ত সুলভ্য।’ প্রকৃতপক্ষে সহজ-সরল জীবন যাপনের মধ্যে এক ধরনের সুখ আছে যাহা অব্যাখ্যাযোগ্য। যাহারা এভাবে জীবন যাপন করেন, তাহাদের মধ্যে একটা মন থাকে। সেই মন পৃথিবীর সকল কষ্টকে সুখে পরিণত করে। তাই তাহারা অন্যদের চাইতে ভালো জীবন যাপন করেন। চীনে একটি প্রবাদ আছে যাহার অর্থ হইল- গরিব হইতে বিলাসী জীবনের সঙ্গে খাপ খাওয়ানো অনেক সহজ, কিন্তু বিলাসী জীবন হইতে গরিব জীবনে ফিরিয়া যাওয়া অনেক অনেক কঠিন। কিন্তু আধুনিককালে এই পৃথিবীতেই একশ্রেণির বিত্তবান আছেন যাহারা এই কঠিন কাজটিকেও সহজ করিয়া নিয়াছেন। মেক্সিকোর সবচাইতে বিত্তশালী ব্যক্তিটির নাম কার্লোস স্লিম। তিনি ২০১০ সালে ফোর্বস ম্যাগাজিনের নির্বাচিত বিশ্বের প্রথম বিত্তশালী হন। অথচ তিনি ৪০ বত্সর ধরিয়া একটি ভাঙা বাড়িঘরে বসবাস করিতেছেন। হাতে পরিতেছেন প্লাস্টিকের একটি সস্তা ঘড়ি। শেয়ারবাজারের ‘স্টক গড’ নামে পরিচিত ওয়ারেন বাফেটও পুরাতন বাড়িতে বসবাস করেন এবং পুরাতন গাড়ি ব্যবহার করেন। তিনি তাহার মানিব্যাগটি ২০ বত্সর ধরিয়া ব্যবহার করিয়া আসিতেছেন। বিশ্বের তরুণ বিত্তশালীদের অন্যতম ও ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকার্বাগের বিয়ের অনুষ্ঠানটি কোনো বিলাসী হোটেলের পরিবর্তে হইয়াছে তাহার নিজের বাসায় সাদামাটাভাবে। আর বিল গেটসের কথা বলাইবাহুল্য। বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় এই ধনী ব্যক্তিটির কোনো ব্যক্তিগত ড্রাইভার নাই। তিনি বিমানের শোভন শ্রেণির কামরার টিকিট আর দোকানের ডিসকাউন্ট করা দ্রব্য কিনিতে পছন্দ করেন। যাহারা ব্যক্তিগত জীবনে বিলাসী, তাহারা খুব কমই সুখী হন। কেননা কার্লোস স্লিমের মতে, প্রত্যেককে সফলতার জন্য চেষ্টা করা উচিত। তবে শুধু বস্তুগত আরামের কথা ভাবা হইলে তাহা হইবে পশুর মতো। তিনি মনে করেন, বিত্তশালী ও গরিব মানুষের মূল পার্থক্য হইল ভোগ আর পুঁজি বিনিয়োগের পার্থক্য বোঝা। অতএব, আমাদের যথাসম্ভব সহজ-সরল জীবন যাপনে অভ্যস্ত হওয়া প্রয়োজন।


এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ